শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৫০ অপরাহ্ন
নোটিশ::
দৈনিক স্বদেশ সংবাদ লাইভ খবর পড়ুন

সমাজে শান্তি শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠায় পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশিংও ভূমিকা রাখছে-গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী

রিপোর্টার / ৭৭ ভিউ
আপডেট সময় : শনিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২২, ২:৪৫ অপরাহ্ন

রঞ্জন মজুমদার শিবু : “কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মূলমন্ত্র শান্তি-শৃঙ্খলা সর্বত্র” শ্লোগানে ময়মনসিংহে কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে জেলা পুলিশ ও জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির আয়োজনে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (২৯ অক্টোবর) সকালে নগরীর কাঁচিঝুলি মোড়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালীর উদ্বোধন করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি। র‌্যাালীটি কাচিঝুলি মোড় থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুলিশ লাইন্সে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালীতে বিভাগীয়, জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তা, কমিউনিটি পুলিশিং এর নেতৃবৃন্দ, আওয়ামীলীগ ও অংগ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ অংশ নেয়।
র‌্যালী শেষে পুলিশ লাইন্সে ড্রিলসেডে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি। এসময় তিনি বলেন, পুলিশ জনগনের বন্ধু। পুলিশ ও জনগন একে অপরের পরিপুক। সমাজে শান্তি শৃংখলা প্রতিষ্ঠায় পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশিং ভূমিকা রাখছে। পুলিশের প্রতি জনগণের প্রত্যাশাও অনেক। পুলিশও জনগণের সেই প্রত্যাশা পুরণে কোন ওজর আপত্তি না দেখিয়ে দ্রুত কাজ করছেন। এটাই পুলিশের পেশাদারিত্ব। ফলে পারস্পরিক আস্থা ও সম্পর্ক দিন দিন বাড়ছে। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা সূর্যদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত জনগণের সেবায় কাজ করছেন। তিনি পদ্মা ব্রীজ দিয়েছেন। দিয়েছেন নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ। আর খালেদা জিয়ার পুত্র পলাতক তারেক দিয়েছেন হাওয়া ভবন আর খাম্বা। তিনি আরো বলেন, তারেক রহমান লন্ডনে বসে ক্ষমতায় আসার ষড়যন্ত্র করছেন। আর মীর্জা ফখরুল তারেক রহমানের নির্দেশে একটা দুইটা সমাবেশ করে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করছেন। মীর্জা ফখরুলকে হুশিয়ারী করে তিনি আরো বলেন, মীর্জা ফখরুল মনে রাখবেন জেলখানায় খালেদা জিয়ার আসন এখনও খালি পড়ে আছে। আপনাদের কোন ষড়যন্ত্রই সফল হবেনা। এদেশের মানুষ তা সফল হতে দিবে না। প্রতিমন্ত্রী বলেন, সকল অপরাধের বিরুদ্ধে আমাদের সজাগ থাকতে হবে। তারা যেন মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে না পারে। আসুন সবাই মিলে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সুখি সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলি।
রেঞ্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার মোঃ শফিকুর রেজা বিশ্বাস বলেন, ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবতায়ন রূপ দিতে আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রণ অপরিহার্য। ছোটখাট ঘটনা থেকেই খুন সহ বড় বড় ঘটনা ঘটছে। প্রাথমিক পর্যায়ে অপরাধ দমন করতে পারলে বড় ধরনের অপরাধ তৈরী হতে পারে না। কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে ছোটখাট অপরাধ নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে পুলিশ।
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক, অতিরিক্ত ডিআইজি আবিদা সুলতানা বিপিএম, জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক খোকা, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম, ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ বাবুল হোসেন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি এডভোকেট বিকাশ রায়, কমিউনিটি পুলিশিং এর সহ-সভাপতি ডাঃ কে আর ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মমতাজ উদ্দিন মন্তা, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আব্দুর রব প্রমুখ।
এর আগে সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখন, পুলিশ সুপার মাছুম আহাম্মদ ভূঞা পিপিএম। তিনি বলেন, কমিউনিটি পুলিশিংয়ের গোড়া পত্তন ময়মনসিংহ জেলা থেকে। তৎকালীন পুলিশ সুপার আহমেদুল হকের হাত ধরে নগরীর মানুষের জানমালের নিরাপত্তায় টাউন ডিফেন্স গঠন করা হয়। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে বাংলাদেশ পুলিশ প্রধান আইজিপি শহিদুল হক সারাদেশে কমিউনিটি পুলিশিং চালু করেন। তিনি আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আধুনিক, উন্নত ও সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে চেয়েছিলেন। উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে হলে আইন শৃংখলা পরিস্থিতির উন্নত করতে হবে। এ লক্ষে তারই কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গি নির্মুল করতে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে জনতা পুলিশ মিলেমিশে কাজ করছেন।
সভাপতির বক্তব্যে রেঞ্জ ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, নিরাপদ বাসযোগ্য বাংলাদেশ বিনির্মানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন। আর তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ এগিয়ে চলছে। কমিউনিটি পুলিশিংয়ের মাধ্যমে সামান্য এবং মিমাংসাযোগ্য অপরাধ নিরসন করা গেলে হত্যার মত বড় অপরাধ অনেক কমে আসবে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফাল্গুনী নন্দী ও জেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের দফতর সম্পাদক স্বপন সেন গুপ্তের সঞ্চালনায় সভায় অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, র‌্যাব-১৪ পুলিশ সুপার জয়িতা শিল্পী, পিবিআইয়ের পুলিশ সুপার রকিবুল আক্তার, টুরিস্ট পুলিশের পুলিশ সুপার এ এ হুমায়ুন কবির, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রাখাল চন্দ্র সরকার, চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ হরিশংকর দাস, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং সদস্য, মুক্তিযোদ্ধা, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ, পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে দায়িত্বশীলতার সাথে কাজ করায় ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাপতি হাবিবুর রহমান হলুদ ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করায় ত্রিশাল থানার এসআই বদিউর রহমানকে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com