বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ::
দৈনিক স্বদেশ সংবাদ লাইভ খবর পড়ুন

আমাদের সকল অবস্থান ও সাফল্যের দাবিদার বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ- সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেয়র

রিপোর্টার / ৯১ ভিউ
আপডেট সময় : সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০২৩, ৩:০৬ অপরাহ্ন

স্টাফ রিপোর্টার : মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে ময়মনসিংহ সিটি করর্পোরেশন এলাকায় বসবাসরত শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। সোমবার (২৭ মার্চ) সকালে টাউন হল এডভোকেট তারেক স্মৃতি অডিটোরিয়ামে সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু। এসময় তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বীর মুক্তিযোদ্ধা সহ সকল শ্রেণী পেশার মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তেমনি সিটি কর্পোরেশন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতায় কাজ করছে। আগামী দিনেও মুক্তিযোদ্ধাদের পাশে থাকবে সিটি কর্পোরেশন। তিনি আরো বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিলেন বলেই আজ আমি মেয়র হতে পেরেছি। আপনারা যদি রক্ত দিয়ে দেশ স্বাধীন না করতেন তবে এর কিছুই সম্ভব হতো না। তৃতীয় শ্রেনীর নাগরিক হয়ে আমাদের বসবাস করতে হতো। আমাদের সকল অবস্থান ও সকল সাফল্যের দাবিদার বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ। মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান হলে আমাদের হৃদয়ে রক্তক্ষরন হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ, দায়িত্ববোধ এবং কৃতজ্ঞতাবোধ থেকেই আমরা প্রতি বছর এ সংবর্ধনা আয়োজন করে থাকি। মেয়র আরও বলেন, ৮৯৯ জন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হচ্ছে। সিটির বীর মুক্তিযোদ্ধাদের একটি হোল্ডিং ও পানির কর মওকুফের সিদ্ধান্ত আমাদের রয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় আজ ১৮০ বীর মুক্তিযোদ্ধার কর মওকুফ সনদ প্রদান করা হচ্ছে। এছাড়াও, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনে বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ ২ তলা পর্যন্ত ভবনের নকশা অনুমোদনে বিনামূল্যে আবেদন করতে পারছেন।
এ সময় সিটির বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সাবমার্সিবল স্থাপনের ফি মওকুফ এবং সিটির নতুন সড়কসমূহ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও ভাষা সৈনিকের নামে নামকরণের ঘোষণা দেন মেয়র। এছাড়াও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য পৃথক করবস্থান নির্মাণের ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে তিনি জানান।
মেয়র আরও বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান ও আত্মত্যাগের কথা আমরা পরবর্তী প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দিতে চাই। এজন্য মুক্তিযুদ্ধে নিজ অভিজ্ঞতা ও ইতিহাস, ছবি ইত্যাদি সিটি কর্পোরেশনে পৌঁছানোর জন্য সিটির বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তিনি অনুরোধ করেন। এসব তথ্য উপাত্ত নিয়ে পরে একটি সংকলন প্রকাশ করা হবে বলে তিনি জানান। উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আহবান রেখে বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে পরিচালনা করছে বলেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এ উন্নয়নকে অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগকে আবারও রাষ্ট্র ক্ষমতায় আনতে হবে। এজন্য সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।
সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইউসুফ আলী, সচিব অন্নপূর্ণা দেবনাথ, প্যানেল মেয়র-৩ সামীমা আক্তার, কাউন্সিলর সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু, সাবেক জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম সাজ্জাদ, ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবি সমিতির পিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা কবীর উদ্দিন ভূইয়া, সাবেক জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব, জেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক নূরুল আমিন কালাম, ময়মনসিংহ সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ রফিকুজ্জামান, ময়মনসিংহ মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম সরকার রর্বাট, সাবেক উপজেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম আজাদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: খালিদ সকদার, রেলওয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ২০ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণ বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোঃ সিরাজুল ইসলাম। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর বৃন্দ, কর্মকর্তা, কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা বৃন্দ ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য বৃন্দসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com